অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ বানিয়ে ইনকাম করুন

যুগ এখন স্মার্টফোনের । দিন যত যাচ্ছে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যাও বাড়ছে । বর্তমান সময়ে সব বয়সের মানুষই স্মার্টফোন ব্যবহার করে। আগেকার সময়ে যেখানে কিছু সংখ্যক মানুষের স্মার্টফোন ব্যবহার করত কিন্তু এখন প্রায় সব মানুষের স্মার্ট ফোন ব্যবহার করে । আগেকার সময়ে আমাদের দেশে স্মার্টফোনের অনেক দাম ছিল সে কারণে তখন কেনার সামর্থ ছিলনা অনেকের । কিন্তু বর্তমান সময়ে অনেক স্মার্ট ফোন পাওয়া যায় অনেক কম দামে । বর্তমান সময়ে অনেক কোম্পানি বাজারে নিয়ে আসছে নতুন নতুন স্মার্টফোন । দিন যত যাচ্ছে নতুন নতুন স্মার্টফোন কোম্পানি বাজারে আসছে । বাজারে টিকে থাকার জন্য নতুন নতুন ফিচার দিয়ে ফোন নিয়ে আসছে অনেক কম দামে । স্মার্টফোনের বাজারে বর্তমানে অনেক প্রতিদ্বন্দ্বী তৈরি হয়েছে যে কারণে আমরা অনেক কম দামি স্মার্টফোন পেয়ে থাকি। দিন যত যাচ্ছে নতুন নতুন ফিচার যুক্ত হচ্ছে এখনকার স্মার্টফোনগুলোতে প্রতিবছর নতুন নতুন স্মার্টফোন যুক্ত হচ্ছে বাজারে । বর্তমান সময়ে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন সহজলভ্য হওয়ায় আমাদের দেশের সব মানুষই স্মার্টফোন ব্যবহার করছে ।

আমরা যারা স্মার্ট ফোন ব্যাবহার করি তারা সবাই কিছু না কিছু অ্যাপস ব্যবহার করি । এছাড়া আমরা স্মার্ট ফোন ব্যবহার করতে পারি না। অনেকে অ্যাপস স্মার্টফোন তৈরি করার সময় কাস্টমাইজ করে দেওয়া থাকে। তারপর আমাদের প্রয়োজনীয় এপস আমাদের প্লে স্টোর থেকে ইন্সটল করে নিতে হয়। প্লে স্টোরে অনেক রকমের অ্যাপস পাওয়া যায় । যেগুলো আমাদের কোন না কোন সময় কাজে দেয় । প্রায় সব বিষয়ে অ্যাপস পাওয়া যায়। স্মার্টফোন অ্যাপস ছাড়া চালানো সম্ভব না স্মার্টফোন দিয়ে আমরা যায় কিছু করতে যায় না কেন আমাদের এপস এ প্রয়োজন হবে যেমন ব্রাউজার করতে গেলে আমাদের ব্রাউজার অ্যাপস লাগবে ছবি তুলতে গেলে আমাদের ছবির তোলার অ্যাপস লাগবে 

এছাড়াও আমাদের যেকোন প্রয়োজনে যে কোন অ্যাপস লাগতে পারে এবং আমরা তা সহজে প্লে স্টোর থেকে ইন্সটল করে নিতে পারি। বর্তমান সময়ে যেহেতু আমরা সবাই স্মার্টফোন ব্যবহার করি। ছোট-বড় সব বয়সের মানুষই স্মার্টফোন ব্যবহার করে। সেজন্য স্মার্টফোনে সব বয়সের মানুষের জন্যই অ্যাপস পাওয়া যায় । যেমন ইন্টারনেট ব্রাউজার করতে যে অ্যাপস প্রয়োজন। ছবি তোলার জন্য যে অ্যাপস প্রয়োজন । ভিডিও এডিটিং করার জন্য যে অ্যাপস প্রয়োজন। পিকচার এডিট করার জন্য যে অ্যাপস প্রয়োজন । অনেক স্টাডি মূলক অ্যাপস । জানা-অজানা অনেক রকমের অ্যাপস, ইত্যাদি আরো অনেক রকমের অ্যাপস পাওয়া যায় প্লে স্টোরে ।

যারা এই অ্যাপসগুলো প্লে স্টোরে‌ আপলোড করেছে তারা মাসে অনেক টাকা ইনকাম করছে তাদের এই অ্যাপস থেকে। বর্তমান সময়ে ইনকাম করার একটা বড় মাধ্যম হল অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ বানিয়ে ইনকাম। বর্তমান সময়ে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ বানিয়ে অনেক বেশি পরিমাণ ইনকাম করা যায়। আমাদের দেশের অনেকেই করছে। বর্তমান সময়ে আমাদের দেশে অনেক মানুষ অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ বানিয়ে প্লে স্টোরে আপলোড করছে এবং ইনকাম করছে। 

অ্যাপ্স বানিয়ে ইনকাম হয় মূলত বিজ্ঞাপন দেখিয়ে। আমরা অনেক সময় লক্ষ্য করে থাকি যে কোন অ্যাপস প্লে স্টোর থেকে ইন্সটল দিলে সেই অ্যাপস এর ভিতরে ঢুকলে অনেক সময় বিজ্ঞাপন দেখা যায়। ওই বিজ্ঞাপনে ক্লিক করে যদি আমরা ভিতরে যাই তাহলে ওই অ্যাপসটি যে প্লে স্টোরে আপলোড করেছেন সেই ব্যক্তি ইনকাম করবে । অ্যাপ্স বানিয়ে মূলত এই বিজ্ঞাপন দেখিয়েই ইনকাম হয়।

বর্তমান সময়ে কোডিং ছাড়াই অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ বানানো যায়। সহজে বানানো যায় দেখে অনেক মানুষ অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ তৈরি করে প্লে স্টোরে আপলোড করছে। এন্ড্রয়েড এপস বানাতে একটা স্মার্টফোন হলেই হয়। তবে পিসি হলে কাজটি সহজ ভাবে করা যায়। প্রথমে একটি স্মার্টফোন লাগবে অবশ্যই ইন্টারনেট কানেক্ট থাকতে হবে। একটা জিমেইল লাগবে একটা এডমোব একাউন্ট হলেই হবে। এগুলো দিয়ে আপনি সহজেই অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস তৈরি করতে পারবেন এবং মাত্র 25 ডলার খরচ করেই আপনার বানানো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস টি প্লে স্টোরে আপলোড করতে পারবেন। প্রথমে কিছুসংখ্যক ডাউনলোড হয়ে যাওয়ার পর থেকে আপনার তৈরি অ্যাপসটিতে বিজ্ঞাপন আসবে। সে বিজ্ঞাপন যত মানুষ দেখবে ততো বেশি ইনকাম করতে পারবেন।

আগেকার সময়ে যেখানে এন্ড্রয়েড এপস বানাতে অনেক ঝামেলা পোহাতে হতো। অনেক খরচ করতে হতো। কিন্তু বর্তমান সময়ে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস বানানো খুবই সহজ। বর্তমান সময়ে কোন কোডিং ছাড়াই এন্ড্রয়েড এপস বানানো যায়। সেই অ্যাপস প্লে স্টোরে আপলোড করে ইনকাম ও করা যায়। তাই বর্তমান সময়ে আমাদের দেশের অনেক মানুষ অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস তৈরি করে ভালো পরিমাণ অর্থ ইনকাম করছে। বর্তমান সময়ে আমাদের দেশে অনেক মানুষ দিন দিন এই অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ বানানোর দিকে আগ্রহ হচ্ছে।

Comments

You must be logged in to post a comment.

লেখক সম্পর্কেঃ