২০২২ সালে বাংলাদেশের সেরা ১০ মিলিয়নিয়ার ক্রিকেটার

বর্তমানে ক্রিকেট শুধু ব্যাট ও বলের খেলা বা বিনোদনের কেন্দ্রবিন্দুতে নেই । ক্রিকেট হয়ে উঠেছে অর্থ উপার্জনের অন্যতম মাধ্যম । ক্রিকেটাররা এখন শুধু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেই সীমাবদ্ধ থাকেনা তারা আইপিএ (IPL), বিপিএল (BPL), আইসিসি বিভিন্ন ইভেন্টসহ আরও বেশ কিছু জনপ্রিয় টুনামেন্ট এর কারণে বর্তমানে ক্রিকেটাররা যেমন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন ঠিক তেমনি উপার্জন করছেন অতিরিক্ত অর্থ ।   আর শুধু ক্রিকেট খেলে নয় নানা রকম বিজ্ঞাপন থেকেও উচ্চ পারিশ্রমিক নিয়ে থাকেন ক্রিকেটাররা । এছাড়াও তারা পরিচালনা করে থাকেন বিভিন্ন ব্যবসা  যেখান থেকে তারা উচ্চমাত্রার মুনাফা অর্জন করে থাকেন।

১০।  সৌম্য সরকারঃ এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান এর পুরো নাম সৌম্য শান্ত সরকার যিনি 25 ফেব্রুয়ারি 199৩ সালে সাতক্ষীরা জেলায় জন্মগ্রহণ করেন এবং তিনি বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠিত আন্তর্জাতিক একজন ক্রিকেটার। বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হওয়ার পাশাপাশি তিনি বাংলাদেশ এ দল, অনূর্ধ্ব 19 দল, খুলনা টাইগার্্‌ খুলনা বিভাগ ও দক্ষিণাঞ্চলের হয়েও খেলেছেন। বর্তমানে তার সম্পদের পরিমান প্রায় আনুমানিক ৮৪ লাখ টাকা।

৯।আব্দুর রাজ্জাকঃ বাংলাদেশের অন্যতম কিংবদন্তি ক্রিকেটার আব্দুর রাজ্জাক ক্রিকেটার থাকাকালীন সময়ে তিনি নির্বাচক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছিলেন এবং এটি দেশের ইতিহাসে প্রথম ঘটে যাওয়া ঘটনাযেখানে কোন ক্রিকেটার নির্বাচক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এই ক্রিকেটার 15 জুন ১982 সালে খুলনায় জন্মগ্রহণ করেন খুলনা বিভাগীয় ক্রিকেট দলের পক্ষে 2000-2002 মৌসুমে বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটার হিসেবে অভিষিক্ত হন। সাবেক বাহাতি এই স্পিনার বাংরাদেশের উন্নতম একজন বোলার। যে কয়েকজন খেলোয়াড় বাংলাদেশি হিসেবে আপিএলে অংশ গ্রহণ করেছেন তিনি তার মধ্যে একজন। 

 বাংলাদেশের এই কিংবদন্তি ক্রিকেটার এর মোট সম্পত্তির পরিমাণ আনুমানিক প্রায় ৮৪ লাখ টাকা

 

৮। মহাম্মাদ আশরাফুল

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক ব্যাটসম্যান এবং অধিনায়কমোহাম্মদ আশরাফুল (জন্ম ৭ জুলাই ১৯৮৪)। তিনি টেস্ট ক্রিকেটে সবচেয়ে কম বয়সে সেঞ্চুরি করার রেকর্ডের অধিকারী। তিনি এই কৃতিত্ব অর্জন করেন শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে শ্রীলঙ্কারই মাটিতে। ব্যাটিংয়ে দক্ষতা ছাড়াও তিনি মাঝে মাঝে ডানহাতে লেগ স্পিন বল করে থাকেন।

২০১৩ সালে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ম্যাচ পাতানো এবং স্পট ফিক্সিংয়ের দায়ে পরের বছর বিপিএল এন্টি করাপশন ট্রাইব্যুনাল আশরাফুলকে ৮ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে। সঙ্গে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। সে বছর সেপ্টেম্বর মাসে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ডিসিপ্লিনারি প্যানেল ওই সাজা কমিয়ে পাঁচ বছর করে।

তার বর্তমানে সম্পর্দের পরিমাণ আনুমানিক ১১ কোটি টাকা। 

৭। মাশরাফি বীন মর্তুজা

মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা (জন্ম ৫ অক্টোবর ১৯৮৩; মাশরাফি বিন মর্তুজা নামেও পরিচিত) হলেন একজন বাংলাদেশী ক্রিকেটার ও রাজনীতিবিদ, যিনি বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক টেস্ট, ওয়ানডেতে ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক ছিলেন এবং বর্তমানে নড়াইল-২ আসন থেকে নির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য।

মাশরাফি বীন মর্তুজা বাংলাদেশ দলের একজন সেরা ক্রিকেটার এবং একজন সেষ্ট্র নেতা। কেবল মাত্র তার জন্যই বাংলাদেশ দল বর্তমানে যে কোনো দলের বিরুদ্ধে মোকাবেলা করতে পারে। 

মাশরাফির বর্তমান সম্পদের পরিমাণ প্রায় ১৩ কোটি টাকা। তিনি বিভিন্ন ব্রেন্ডের এম্বাসাডর হিসেবে যুক্ত আছেন এবং সেখান থেকেই টাকা আয় করেন।

৬।মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ

মোহাম্মদ মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৮৬ ময়মনসিংহে জন্মগ্রহণকারী একজন বাংলাদেশী ক্রিকেটার। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম সিনিয়র সদস্য তিনি। রিয়াদ অল-রাউন্ডার, কার্যকরী মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান এবং অকেশনাল অফ স্পিন বোলার হিসেবে বাংলাদেশ জাতীয় দলে খেলছেন।

মাহামুদুল্লাহ রিয়াদের বর্তমান সম্পদের আনুমানিক আয় হলো প্রায় ৩ মিলিয়ন ডলার যেটা বাংলাদেশী টাকা প্রায় ২৫ কোটি টাকা।  তিনি বিভিন্ন ম্যাচ ফি, বিজ্ঞাপন, বোনাস ইত্যাদি থেকে এই টাকা আয় করে থাকেন।

৫। তাসকিন আহমেদঃ বাংলাদেশ দলের অন্যতম বামহাতি ব্যাটসম্যান এবং ডানহাতি ফাস্ট বোলার তাস্কিন আহ্মেদ জন্মগ্রহণ করেন 3 এপ্রিল 1992 সালে।   বাংলাদেশের ক্রিকেট দলের হয়ে তিনি টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ওডিআই ম্যাচ খেলে থাকেন। তিনি বাংলাদেশের একমাত্র ক্রিকেটার যিনি ল  আইপিএল এর মত একটি  ফ্রাঞ্চাইজি  যেখানে খেলা ক্রিকেটারদের স্বপ্ন থাকে এরকম একটা ফ্রাঞ্চাইজি থেকে ডাক পেয়েও তা গ্রহণ করেননি। তরুণদের মধ্যে অত্যন্ত জনপ্রিয়তা পাওয়া এই ক্রিকেটার তাসকিনের সম্পদের পরিমাণ ফাইভ মিলিয়ন ডলার অর্থাৎ বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৪২ কোটি টাকা। 

৪।  বাংলাদেশ জীতয় ক্রিকেট দলের উন্নতম এক ফাস্ট বলার হলো মুস্তাফিজুর রহমান। তিনি ৬ সেপ্টেম্বর ১৯৯৫ সালে সাতক্ষীরায় জন্মগ্রহণ করেন।  আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের পাশাপাশি তিনি বিপিএল ও আইপিএল এও খেলে থাকেন। বিপিএলের তিনি কুমিল্লা এবং আইপিএলের তিনি দিল্লি ক্যাপিটালস হয়ে খেলে থাকেন।  বর্তমান তার সম্পদের পরিমান প্রায় ১৩ মিলিয়ন ডলার যেটা বাংলাদেশী টাকা প্রায় ১১০ কোটি টাকা। 

৩। মুশফিকুর রহিম ঃ বাংলাদেশ জাতীয় দলের তিন ফরম্যটে অধিনায়ক ছিলেন মুশফিকুর রহিম । তিনি 9 মে ১987 সালে বগুড়া জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। সেপ্টেম্বর ২০১১ থেকে রহিম জাতীয় দলের অধিনায়ক নির্বাচিত হন। মূলত তিনি একজন উইকেট-রক্ষক এবং মাঝারিসারির ব্যাটসম্যান। মুশফিকুর রহিম ক্যারিয়ারের শুরু থেকে অনেক প্ররিশ্রম করেছেন এবং নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য এক মাত্রায় । তার বর্তমান অর্থের পরিমান প্রায় ২৫ মিলিয়ন ডলার। যেটা বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ২১২ কোটি টাকা। 

২। তামিম ইকবাল

তার পুরো নাম তামিম ইকবাল খান। বাংলাদেশ জাতীয় দলের এই বামহাতি ব্যাটসম্যান 20 মার্চ ১৯৮৯ সালে চট্টগ্রামের খান পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।  অভিজ্ঞতা ও কঠোর পরিশ্রমের আদলে প্রতিটি খেলায় তার নৈপুণ্য ও ধারাবাহিকতা তাকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে এসেছে। তার বর্তমান সম্পদের পরিমান প্রায় ৩০ মিলিয়ন ডলার। যেটা বাংলাদেশী টাকায় ২৫৪ কোটি টাকা দাঁড়ায়। জাতীয় দলের বাইরে তিনি বিভিন্ন লীগ এবং বিজ্ঞাপন থেকে তিনি এই টাকা আয় করে থাকেন। 

১। সাকিব আল হাসান

আপনাদের মধ্যে কেউ কি ধারণা করেছিলেন এক নম্বরে থাকবে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান  যদি কেউ শুরুতেই ধারণা করে থাকেন তবে তা অবশ্যই আমাদের কমেন্ট করে জানান।  এবং আপনাকেও

 অভিনন্দন আমাদের তালিকার এক নম্বরে রয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। বাঁহাতি এই অলরাউন্ডার ১৯৮৭ সালের ২৪ মার্চ মাগুরা জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। প্রথম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে আইসিসির ওয়ানডে অলরাউন্ডার র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে উঠে আসেন সাকিব। বিভিন্ন সময় আলোচনা ও সমালোচনার শীর্ষে থাকেন এই তারকা ক্রিকেটার . তার মোট সম্পদের পরিমাণ প্রায় ৪০ মিলিয়ন ডলার। যা বাংলাদেশী টাকা ৩৩৯ কোটি টাকা। ক্রিকেট ছাড়াও তিনি বিভিন্ন ব্রেন্ড, লিগ এবং নিজের ব্যবসা থেকে তিনি এই টাকা আয় করেছেন। 

Comments

You must be logged in to post a comment.

লেখক সম্পর্কেঃ