Top 3 অনলাইনে আয় করার 3টি সেরা মাধ্যম।

1. ইকোমার্স,

প্রযুক্তির অগ্রগতির ফলে দিন দিন ইনটারনেট ব্যবহারকারির সংখ্যা বেড়েই চলেছে ফলে অনলাইনে কেনাকাটার প্রবনতা বেড়েছে। ফলে এই সেক্টরটাকে কাজে লাগিয়ে ক্যরিয়ার গরানো একটা দারুন সুযোগ রয়েছে। তবে আপনি যদি একজন সফল উদ্যক্তা হতে চান তাহলে অবশ্যই মার্কেটের ট্রেন্ডিং প্রডাক্ট গুলো নিয়ে বিজনেস শুরু করতে হবে। সব থেকে গুরুত্বপূর্ন ৪টি বিষয়ে আপনাকে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে তা হলো -

১, বিজনেসের জন্য একটা প্রফেসনাল লুকিং website থাকতে হবে।

২, আপনার প্রডাক্টের ফটো Edit করারর জন্য একজন গ্রফিক্স ডিজাইনার থাকতে হবে

৩, আপনার প্রডাক্ট মার্কেটিং করার জন্য আপনার একটা সোসাল মিডিয়া পেইজ থাকতে হবে।

৪, বিজনেস ভেরিফিকেশন। এটা আপনার কাস্টমার দের আস্থা বাড়িয়ে দিবে

2. freelanceing,

বর্তমান সময়ে freelanceing একটা বহুল জনপ্রিয় সেক্টর এখানে যেকোনো একটা কাজের দক্ষতা নিয়ে আপনিও হতে পারেন একজন প্রফেসনাল freelancer। তবে এখানে ইনকাম নির্ভর করবে আপনার স্কিলের উপর। এখনে ইনকাম বলাটা যত সহজ করাটা ততটাও সহজ নয় মার্কেটে প্রচুর কম্পিটিসন রয়েছে। so, অবস্যই আপনাকে বুঝেসুনে এই সেক্টরে আসতে হবে। এখনে আপনি যদি web development শিখে মার্কটে আসতে পারেন তাহলে আপনার ২রকমের ক্যরিয়ার গরার সুযোগ রয়েছে।

১, আপনি freelanceing করতে পরেন।

২, আপনি নিজেই website বানিয়ে নিজেই বিজনেস শুরু করতে পারেন।

বর্তমান সময়ে freelanceing এর জন্য মার্কেটের ট্রেন্ডিং কয়েকটি গিগ হলো 

গ্রাফিক্স ডিজাইন, ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট, কন্টেন্ট রাইটিং, ডিজিটাল মার্কেটিং,

contant writeing বর্তমানে একটা trending ট্রপিক এখানে ক্যরিয়ার দার করার দুইটি সুযোগ রয়েছে প্রথমত আপনি একজন freelancer হতে পারেন দ্বীতিয়ত আপনি একজন blogger হিসেবে কাজ করতে পরবেন।

আপনি যদি blogging করেন তাহলে lifetime ইনকাম করার দারুন একটা সুযোগ রয়েছে এখানে।blogging থেকে আয় করার বেশ কয়েকটি উপাই রয়েছে এখানে

১. sponsor.  ২, affiliation 3, self produced  promotion ইত্যাদি 

3, affiliated marketing,

অনলাইনে ইনকাম করার সবথেকে সহজ এবং জনপ্রিয় মাধ্যম হলো affiliated marketing, এখানে একটা বড় সুবিধা হলো আপনার কোনো পুজির প্রয়োজন নেই।আপনি যদি ট্রাফিক ম্যনেজ করতে পারেন তাহলে এই সেক্টর আপনার জন্য। বর্তমান সময়ে সোসাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে এফিলিয়েট মার্কেটিং করে প্রতি মাসে কয়েক শ ডলার আয় করছে। তাই আপনি যদি এই সেক্টরে আসতে চান তাহলে এখন থেকেই কাজ শুরু করুন।

তবে প্রফেসনাল ভাবে কাজ করতে হলে আবশ্যই একটা website থাকা অবশ্যক একই সাথে facebook সপ ও ইসিস্টাগ্রাম সপ থাকতে হবে। এছাড়াও বিভিন্ন ads ফরাম গুলোতেও আপনি affiliate produced গুলো প্রমোসন করতে পারেন। এখানে most inpatient একটা বিষয় আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে তা হলো website domain। আপনার domain name এবং সোসাল মিডিয়া shop name গুলো যেনো একই হয়।।।

thank you,

Comments

You must be logged in to post a comment.

লেখক সম্পর্কেঃ